আখাউড়ায় হাওড়া নদীর বাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ গ্রাম প্লাবিত

0
59

টানা কয়েকদিনের বর্ষণ ও ভারতীয় পাহাড়ি ঢলের পানির তোড়ে ভেঙ্গে গেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা এলাকার হাওড়া নদীর বাঁধ। গত রোববার ভোরে হাওড়ার এই বাঁধ ভেঙ্গে সীমান্ত এলাকার বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতা সৃষ্টিসহ প্লাবিত হয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা। লোকালয়ে পানি প্রবেশ করায় সীমান্তবর্তী গ্রামের মানুষেরা দিনাতিপাত করছেন চরম আতঙ্কে।

সরেজমিন খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত কয়েকদিনের টানা বর্ষণ ও ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পাহাড়ি ঢলের পানির তোড়ে উপজেলার মোগড়া ইউনিয়ন এলাকার সীমান্তবর্তী ধাতুরপহেলা গ্রামে হাওড়া নদীর বাঁধ ভেঙ্গে যায়। এখানের চলাচলের পাকা রাস্তাও পানির প্রবল তোড়ে ভেসে গেছে। স্থানীয় খলাপাড়া, ধাতুরপহেলা, কুসুমবাড়ি, কর্ণেলবাজার এলাকার নিচু বাড়িঘরে উঠে গেছে পানি। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে নিচু এলাকার অনেক মানুষ। দ্রুত এই ভাঙ্গা বাঁধ মেরামত করতে না পারলে গোটা এলাকা প্লাবিত হয়ে যাবার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, গত ক’দিনের টানা বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পাহাড়ি ঢলের পানিতে সীমান্তবর্তী ধাতুরপহেলা এলাকায় হাওড়ার বাঁধ ভেঙে রোববার সকাল থেকেই  এলাকায় পানি প্রবেশ করতে থাকে। স্থানীয় খলাপাড়া, ধাতুরপহেলা, কুসুমবাড়ি, কর্ণেলবাজার এবং আশপাশের নিচু এলাকার বাড়িঘর তলিয়ে যায়। পানিবন্দী হয়ে পড়েন এলাকার নিম্ন আয়ের অনেক গরিব লোকজন। একদিকে হাওড়া নদীর ভাঙন, অপরদিকে আখাউড়া স্থলবন্দর এলাকার খাল দিয়ে প্রবল বেগে আসা ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পাহাড়ি ঢলের পানিতে আখাউড়া উপজেলার মোগড়া, মনিয়ন্ধ এবং আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের অন্তত ১৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়। ইতোমধ্যে বানের পানিতে অনেক পরিবার হয়ে পড়েছেন পানিবন্দী। ভেসে গেছে পুকুরের মাছ, তলিয়ে গেছে ফসলি জমি-স্থানীয় রাস্তাঘাট। মোগড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) মো. আওয়াল মিয়া বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রোববার সকালে ধাতুরপহেলা এলাকায় হাওড়ার বাঁধ ভেঙে স্থানীয় কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়ে পড়েছে।