রেলওয়ে জায়গা আওয়ামীলীগ নেতার মার্কেট গুড়িয়ে দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ

0
27

স্টাফ রিপোর্টার: ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বড়হরণ এলাকায় রেলওয়ের প্রায় ৪৮ শতাংশ জায়গা দখল করে দুই আওয়ামী লীগ নেতার বানানো অবৈধ মার্কেট উচ্ছেদ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আশুগঞ্জ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরোজা পারভীন রেলওয়ের ভূ-সম্পত্তি বিভাগকে নিয়ে এ উচ্ছেদ অভিযান চালান। তিন বছর আগে নির্মিত ওই মার্কেটটিতে ১০৬টি দোকান রয়েছে।

অভিযানের সময় রেলওয়ের সহকারী ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. অহিদুন নবী, কানুনগো মো. ইকবাল মাহমুদ ও সার্ভেয়ার ফারুক হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নের বড়হরণ এলাকার ভাটপাড়া মৌজার ওই জায়গাটি কৃষিকাজের জন্য মাদরাসার নামে বন্দোবস্ত দেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সেই জায়গায় কৃষিকাজ না করে বড়হরণ ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার নামে মার্কেট নির্মাণ করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এলেম খাঁ ও মাদরাসার সুপার সুলতান উদ্দিন আহমেদ। তারা একাধিক দোকান নিয়ে সেগুলো বিক্রি করে দেন।

ক্ষতিগ্রস্ত একাধিক ব্যক্তি নারীশিশু.কমকে জানান, আমাদের প্রতিটি দোকান থেকে মাদ্রাসা প্রর্তৃপক্ষ ৩,১০,০০০ (তিন লক্ষ দশ হাজার) টাকা করে বন্দোবস্ত করে দেয়ার নামে নেন। আমরা পূর্ব ঘোষিত কোন নোটিশ পাইনি। আজ সকাল বেলায় হঠাৎ আইন শৃংখলা বাহিনী এসে বোলডোজার দিয়ে দোকান গুড়িয়ে দেয়। আমাদের দোকানে থাকা মালপত্র, আসবাবপত্র বের করতে পারিনি। ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, অবৈধ দখল দেয়া মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলতে গেলে স্থানীয় নেতা নাটাই (দক্ষিণ) ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এলেম খাঁ বলেন আমি এ বিষয়ে কথা বলতে পারবো না।

দখলকারীদের একজন বড়হরণ ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মো. সুলতান উদ্দিন আহমেদ বলেন, কৃষিজমির নামে জায়গাটি বন্দোবস্ত নিয়েছিলাম। বাণিজ্যিক লিজের জন্য আবেদন করলেও সেটি গ্রহণ করা হয়নি। অবশেষে উচ্ছেদ করে দেয়া হলো।

আবেদন মঞ্জুর হয়নি তবু কেন মার্কেট নির্মাণ করলেন এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন আমাদের মাদ্রাসার দাতা সদস্য স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামীলগ নেতা এলেম খাঁর পরামর্শে মার্কেট নির্মাণ করেছি। যা হবার তা তিনিই ব্যবস্থা করবেন।
বরাদ্দকৃত অর্থ ফেরত দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এ বিষয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। তবে তা অচিরেই সমাধান করা হবে।

রেলওয়ের সহকারী ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. অহিদুন নবী বলেন, মার্কেট উচ্ছেদ করার জন্য দখলদারদের আগেই নোটিশ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা জায়গাটি দখলমুক্ত করেনি। সেজন্য ভ্রাম্যমাণ আদালত উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছেন। রেলেওয়ের জায়গা অবৈধভাবে দখলকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কমেন্ট এর উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে