শিশুদের মঙ্গলাবৃত্তির মধ্য দিয়ে বসন্তবরণ উৎসব।

0
182

শিশুদের মঙ্গলাবৃত্তির মধ্য দিয়ে গত ১৭ বছরের ধারাবাহিকতায় ১৮ বার বসন্তবরণ উৎসব পালন করলো তিতাস সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদ। এবার তিসাসপ ও সিদীপ আয়োজিত বসন্তবরণ উৎসবে এক অন্যমাত্রা যুক্ত হয়। সহযোগিতা থাকে পিকেএসএফ। ১৭ বছর পার করে ১৮ বছরের মতো এই উৎসব আয়োজন হলো। আবহমান বাঙালির নানা ঐতিহ্যের মধ্যে পহেলা ফাল্গুন বাঙালি জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ন অংশ। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে বাংলাদেশের বাঙালি ঐতিহ্যকে নিয়ে আমাদের চলতে হবে। এবং ভবিষ্যত প্রজন্মকে জানান দিতে এই সমস্ত আয়োজন বেশি বেশি করতে হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন। বসন্ত যেমন আমাদের মাঝে ভালোবাসার গান নিয়ে আসে ঠিক সেই ভালোবাসাকে পুজি করেই আমাদের ভালোবাসার পরিমাণ বাড়াতে হবে একে অপরের মাঝে। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় আমাদের মধ্য যত বেশি ভালোবাসার বিনিময় হবে তত বেশি আমরা মানবিক হতে পারবো। অনুষ্ঠানের একথা বলেন। সংগঠন সদস্য বাছির দুলাল ও উত্তম কুমার দাসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠন উপদেষ্টা এটিএম ফয়েজুল কবির। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু সাইদ, নাট্যজন মনজুরুল আলম, নারীনেত্রী নন্দীতা গুহ, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এড. তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব স্বপন রায়, পৌর কলেজ শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন, তিসাসপ আহবায়ক স্বপন কুমার দেবনাথ, সদস্য সচিব হৃদয় কামাল, আবরনি নির্বাহী পরিচালক হাবিবুর রাহমান পারভেজ, সিদীপ কর্মকর্তা মাহবুব আলম। এছাড়া অনুষ্ঠানমালায় থাকে শিশু, কন্যা, অভিভাবকদের ফুলে সজ্জিত আনন্দ শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রায় অংশ নেয় সংগঠনে সকল সদস্য বাসন্তী সাজে। অনুষ্ঠানস্থল শহীদ নীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষাচত্বর থেকে শহর প্রদিক্ষণ করে অনুষ্ঠান স্থলে এসে শোভাযাত্রা শেষ হয়। অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করে ফারুক আহমেদ পারুল, নবনিতা রায় বর্মণ, সোহাগ রায়, জিয়ামিন ও ইমরানের নির্দেশনায় সূর্যমুখী কিন্ডারগার্টেন, ক্রিসেন্ট কিন্ডারগার্টেন ও সাবেরা সোবহান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও পৌর কলেজের শিক্ষার্থী আশা নৃত্য পরিবেশন করে। স্বরচিত কবিতা পাঠে অংশ নেয়া কবি আমির হোসেন ও মানিক রতন শর্মা এছাড়া বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করে তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের শিল্পীবৃন্দ। অনুষ্ঠান শেষে সংগঠন সদস্য ও অতিথিদের শুভেচ্ছা উপহার এবং আপ্যায়ন করা হয়।

কমেন্ট এর উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে